নিম্নোক্ত ফতোয়ার সমর্থনে মুফতি আছে কি?

10 বার প্রদর্শিত
04 ডিসেম্বর "ধর্ম ও বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন নাসিম হায়দার (120 পয়েন্ট)
এমন কোন মুফতি আছেন কি নিম্নোক্ত প্রশ্নের উত্তরটি সমর্থন করেন?

প্রশ্নঃ কোন লম্পট যদি শালী বা শাশুড়ির সাথে অথবা পুত্রবধূর সাথে ব্যভিচার করে, তাহলে তার বিবাহিতা স্ত্রী হারাম হয়ে যাবে কি?

উত্তরঃ এতে কোন সন্দেহ নেই যে, কোন মাহরামের সাথে ব্যাভিচার করা সবচেয়ে বড় ব্যাভিচার। কিন্তু কোন অবৈধ সম্পর্ক বৈধ সম্পর্ককে ছিন্ন করতে পারে না। অবৈধ ভাবে যৌন মিলন ঘটালেই সে তার স্ত্রী হয়ে যায় না এবং তার মা বা মেয়ে স্ত্রীর বন্ধন থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উন্মুক্ত হয়ে যায় না।

মহান আল্লাহ কাকে কাকে বিবাহ হারাম— সে কথা বলার পর বলেছেন,

“উল্লেখিত নারীগণ ব্যতীত আর সকলকে বিবাহ করা তোমাদের জন্য বৈধ করা হল; এই শর্তে যে, তোমরা তাঁদেরকে নিজ সম্পদের বিনিময়ে বিবাহের মাধ্যমে গ্রহণ করবে, অবৈধ যৌন সম্পর্কের মাধ্যমে নয়।” (নিসাঃ ২৪)

যেখানে বৈধ মিলনের ফলে অনেক মহিলা হারাম হওয়ার কথা বলা হয়েছে, কিন্তু অবৈধ মিলন ব্যভিচার এর ফলে কেউ হারাম হবে কি না, সে কথা বলেননি। সুতরাং বুঝা যায় যে, উক্ত মহিলাগন ছাড়া অন্য কেউ হারাম নয়। হাদিসে কিছু মহিলার হারাম হওয়ার কথা বলা হলেও ব্যাভিচারের ফলে হারাম হওয়ার কথা বলা হয়নি। অথচ জাহেলি যুগে ব্যভিচারের প্রকোপ খুব বেশী ছিল। সুতরাং বুঝা যায় যে, কোন অপবিত্র সম্পর্ক কোন পবিত্র সম্পর্কের বন্ধনকে ধ্বংস করতে পারে না। ৫৮৬ (দ্রঃ ৭/৯০, আযওয়াউল বায়ান ৬/৩৪১, মুমতে ৫/২০৩)

1 উত্তর

0 টি ভোট
06 ডিসেম্বর উত্তর প্রদান করেছেন Ceevit (5,280 পয়েন্ট)
উপোরিক্ত ফতোয়া  আমি সমর্থন করি

3,374 টি প্রশ্ন

3,657 টি উত্তর

367 টি মন্তব্য

759 জন সদস্য

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
...